প্রাণের ৭১

বৃহস্পতিবার, এপ্রিল ১১th, ২০১৯

 

পরিক্ষা দিচ্ছে না শুধু নুসরাত।

আজ বৃহস্পতিবার সোনাগাজী ইসলামীয়া সিনিয়র ফাজিল মাদ্রাসা কেন্দ্রের ৮ নম্বর কক্ষে ফিকহ্ ২য় পত্রের পরীক্ষা চলেছে সবাই পরীক্ষায় দিচ্ছে শুধু নেই নুসরাত জাহান রাফি। খালি পড়ে রয়েছে তার সিটটি রাফির রোল নম্বর ১৪৯৬১৪ এই আসনে বসে আর পরীক্ষা দেওয়া হবেনা।       গতকাল রাতে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে সবাইকে কাদিতে চীর বিদায় নিয়ে চলে গেছেন রাফি। সোনাগাজী ইসলামীয়া সিনিয়র ফাজিল মাদ্রাসা কেন্দ্রের সচিব নূরুল আফছার ফারুক কালের কণ্ঠ জানান আজ সকালে পরীক্ষা দিয়ে এসে কান্নায় ভেঙে পড়েন রাফির সহপাঠীরা। কোনোভাবেই তারা রাফির অকাল মৃত্যুকে মেনে নিতে পারছেনআরো পড়ুন


মুক্তি পেলেন অভিজিৎ হত্যা মামলার আসামি ফারাবী

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনে করা মামলায় বিজ্ঞানমনস্ক লেখক ও ব্লগার অভিজিৎ রায় হত্যাকাণ্ডের অন্যতম আসামি শফিউর রহমান ফারাবীকে খালাস দিয়েছেন ট্রাইব্যুনাল।   আজ বুধবার বাংলাদেশ সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক মোহাম্মদ আস সামশ জগলুল হোসেন তার বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় তাকে খালাস দেন। রায় ঘোষণার আগে ফারাবীকে কারাগার থেকে আদালতে হাজির করা হয়।   মামলার অভিযোগ থেকে জানা যায়, বিভিন্ন সময় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ফারাবী বিভিন্ন ভিআইপি ব্যক্তিকে হুমকি দিয়ে আসছিলেন। বাংলাদেশ প্রতিদিন পত্রিকায় মুক্তমনা লেখিকা তসলিমা নাসরিনের কলাম ছাপানোর কারণে পত্রিকার সম্পাদক নঈম নিজামকে হুমকি দিয়েছিলেন ফারাবী। এসব ঘটনায় তারআরো পড়ুন


কেউ ছাড় পাবে না :স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

নুসরাত হত্যার বিচার দ্রত বিচার আইনে মামলা চলবে – আইনমন্ত্রী

আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, মাদ্রাসা ছাত্রী নুসরাত জাহান রাফিকে আগুনে ঝলসে মারার ঘটনায় দোষীদের বিচার দ্রুত বিচার আইনে হবে। অপরদিকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, জড়িত কেউই বিন্দুমাত্র ছাড় পাবে না। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে সচিবালয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয় সড়ক পরিবহন আইন বাস্তবায়ন বিষয়ে আন্তঃমন্ত্রণালয় বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে আইন ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এসব কথা বলেন।   আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেন, নুসরাতকে পুড়িয়ে মারার ঘটনার মামলা বিষয়ে প্রসিকিউশনকে বলেছি যেন দ্রুত ও সর্বোচ্চভাবে তারা তাদের কাজটা করে। চার্জশিট হলে দ্রুত বিচার আইনে যাতে বিচার হয় সে ব্যবস্থাও নেবো। প্রসিকিউশন টিমকে এরই মধ্যে তাআরো পড়ুন


মানববন্ধনে যোগদানের আহবান

আজ শহিদ মিনারে নুসরাত হত্যার প্রতিবাদে প্রানের’৭১ এর মানববন্ধন।

সাম্প্রতিক ঘটে যাওয়া নুসরাত হত্যা কান্ড একটি জগন্য নির্মম  হত্যা কান্ড। যা দেশ বিদেশে সকল বিবেকবান মানুষের হৃদয়কে নাড়া দিয়েছে।  বঙ্গবন্ধুর আর্দশের বিশ্বাসী অনলাইন ও সামাজিক সংগঠন প্রানের’৭১ প্রতিষ্ঠার পর থেকে   সব সময় দেশে ঘটে যাওয়া অপরাধ ও অন্যায় এর ধারাবাহিকভাবে  প্রতিবাদ করে আসছে। প্রানের’৭১ এর মানববন্ধনে যোগদানের আহবান করে দেওয়া  ফেসবুক পোস্টটি  হলো। আজ শুক্রবার (১২ই এপ্রিল)   বিকেল ৪টায় #প্রাণের_৭১ জাতীয় শহীদ মিনারে নুসরাত হত্যার প্রতিবাদে মানববন্ধন এবং সন্ধ্যায় মোমবাতি প্রজ্জ্বলন করবে। আপনাদের সবার উপস্থিতি কামনা করছি। জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু। তারিখঃ ১২/৪/২০১৯ সময়ঃ বিকাল ৪টা স্থানঃআরো পড়ুন


দাদির কবরে পাশে চিরনিদ্রায় শায়িত নুসরাত

দাদির কবরের পাশের কবরে বৃহস্পতিবার (১১ এপ্রিল) সন্ধ্যা ৬টার কিছু পরে মাদরাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফিকে দাফন করা হয়েছে। এর আগে পৌনে ৬টার দিকে সোনাগাজী পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠে নুসরাতের নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। জানাজায় পড়িয়েছেন তার বাবা একেএম মুসা মানিক।     টানা পাঁচদিন মৃত্যুর সঙ্গে লড়াই করে বুধবার রাতে মৃত্যুর কাছে হার মানেন নুসরাত জাহান রাফি। ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন নুসরাতকে বুধবার রাত সাড়ে ৯টায় মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসক। শারীরিক অবস্থার একটু উন্নতি হলেই নুসরাতকে সিঙ্গাপুরে নেয়ার পরিকল্পনা করছিলেন চিকিৎসকরা। তার পরীক্ষা-নিরীক্ষাসহআরো পড়ুন


বাবার ইমামতিতে নুসরাতের জানাজা।

টানা ১০৮ ঘণ্টা আইসিইউতে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ে অবশেষে না ফেরার দেশে পাড়ি জমিয়েছেন ফেনীর অগ্নিদগ্ধ নুসরাত জাহান রাফি।   বৃহস্পতিবার বিকাল ৫টার দিকে নুসরাতের মরদেহ তার গ্রামে পৌছালে সেখানে হৃদয়বিদারক পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়। নুসরাতকে বহনকারী অ্যাম্বুলেন্সটি সোনাগাজীর উত্তর চর চান্দিয়ায় পৌঁছানোর আগেই হাজার হাজার মানুষ জড়ো হন।   বিকাল ৫টা ৫৩ মিনিটে চর চান্দিয়া সাবের পাইলট স্কুল মাঠে নুসরাতের জানাজার নামাজ অনুষ্ঠিত হয়। জানাজার ইমামতি করেন নুসরাতের বাবা মাওলানা একেএম মুসা।   প্রিয়কন্যার এমন মর্মান্তিক মৃত্যুতে শোকাহত বাবা নিজেই পড়িয়েছেন মেয়ের জানাজার নামাজ।   জানাজায় স্থানীয় সংসদ সদস্য মেজরআরো পড়ুন