প্রাণের ৭১

অক্টোবর, ২০১৮

 

‘ডিবি পরিচয়ে তুলে নেওয়া হয়েছে’

লঞ্চে ওঠার পর নিখোঁজ ব্লগার জুলভার্ন

কবির, যিনি জুলভার্ন নামে বিভিন্ন ব্লগে লিখতেন। এই লেখকের স্বজনরা দাবি করছে, গত শনিবার সন্ধ্যায় ‘পিএস টার্ন’ নামের একটি লঞ্চে ওঠার পর থেকে জুলভার্নের সন্ধান মিলছে না। বন্ধ রয়েছে তাঁর মোবাইল ফোনটিও। লঞ্চ ছাড়ার আগে তাঁকে ডিবি পরিচয়ে দুই ব্যক্তি ধরে নিয়ে গেছে—এমন তথ্য পেয়েছে তারা। এ ঘটনায় শনিবার রাতেই রাজধানীর শেরেবাংলানগর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি নং- ১৯৮২) করা হয়েছে। জুলভার্ন নামে সামহোয়্যারইন ব্লগ ও অন্যান্য ব্লগ সাইটে লেখালেখি করেন হুমায়ূন কবির। লেখালেখির পাশাপাশি তিনি সার্জিক্যাল ইক্যুইপমেন্টের ব্যবসা করতেন। তিনি রাজধানীর গ্রিন রোডে পরিবারের সঙ্গেই থাকেন। হুমায়ূন কবিরের স্ত্রীআরো পড়ুন


লেখক ও ব্লগার জুলভার্ন ‘নিখোঁজ’

লেখক ও ব্লগার জুলভার্ন দু’দিন ধরে নিখোঁজ রয়েছেন। জুলভার্ন নামে সামহোয়্যারইন ব্লগ ও অন্যান্য ব্লগ সাইটে লেখালেখি করলেও তার আসল নাম হুমায়ূন কবির। গত শনিবার সন্ধ্যায় রাজধানীর সদরঘাট থেকে পিরোজপুরগামী একটি লঞ্চে উঠেন হুমায়ূন কবির। এরপর থেকে তার কোনো সন্ধান পাওয়া যাচ্ছে না। হুমায়ূন কবিরের স্ত্রী মৌসুমী কবির জানান, ‘আমার দুই ছেলে লঞ্চে খোঁজ নিতে গেলে দু’জন কেবিন বয় তাদের জানায়— লঞ্চ ছাড়ার আগেই নাকি আমার স্বামীকে ডিবি পরিচয়ে দুই ব্যক্তি নামিয়ে নিয়ে যান।’ নিখোঁজের ছেলে আহমেদ ইমতিয়াজ শুভ বলেন, ‘বাবার কোনো সন্ধান না পেয়ে শনিবার রাতেই আমরা শেরেবাংলা নগরআরো পড়ুন


চট্টগ্রামে আলোচিত বিএনপি নেতা লিয়াকত চেয়ারম্যান গ্রেপ্তার

চট্টগ্রামের বাঁশখালী উপজেলা বিএনপি নেতা ও গণ্ডামারা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান লিয়াকত আলীকে গ্রেপ্তার করেছে নগর গোয়েন্দা পুলিশ। মঙ্গলবার রাতে নগরীর কোতোয়ালী থানার লালদীঘি এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার (অপরাধ ও অভিযান) আমেনা বেগম বলেন, লিয়াকতকে নগর গোয়েন্দা পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে। তার বিরুদ্ধে একাধিক নাশকতার মামলা রয়েছে। পুলিশ জানায়, ২০১৬ সালের ৪ এপ্রিল গণ্ডামারা ইউনিয়নে কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের বিরোধিতা করে বসতভিটা রক্ষা কমিটির ব্যানারে আন্দোলনে পুলিশের সাথে ত্রিমুখী সংঘর্ষে চারজন নিহত হন। আন্দোলনকারী বসতভিটা রক্ষা কমিটির আহ্বায়ক ছিলেন লিয়াকত আলী। ওই বছরেরআরো পড়ুন


প্রধানমন্ত্রীর সাথে ড. কামালের আলোচনা ফলপ্রসূ হবে না: এরশাদ

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে ড. কামাল হোসেন নেতৃত্বাধীন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের আলোচনা ফলপ্রসূ হবে না বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এইচএম এরশাদ। বুধবার সংলাপের আমন্ত্রণ জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পাঠানো চিঠি পাওয়ার পর সাংবাদিকদের এ কথা বলেন তিনি। এদিন আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক আবদুস সোবহান গোলাপ এবং তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক আফজাল সংলাপের আমন্ত্রণপত্র বারিধারায় এরশাদের বাড়িতে নিয়ে যান। তারা চিঠিটি এরশাদের কাছে হস্তান্তর করেন। আগামী ৫ নভেম্বর সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় গণভবনে সংলাপের জন্য জাতীয় পার্টিকে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। এরশাদ বলেন, ‘জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের সাথে আলোচনা সফল হবে না। কারণআরো পড়ুন


জেএসসি ও জেডিসি পরীক্ষা শুরু

জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) ও জুনিয়র দাখিল সার্টিফিকেট (জেডিসি) পরীক্ষা আগামী কাল থেকে শুরু হচ্ছে। শিক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে , এবারের পরীক্ষায় মোট ২৬ লাখ ৭০ হাজার ৩৩৩ পরীক্ষার্থী অংশগ্রহণ করছে। গত বছর পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ছিল ২৪ লাখ ৬৮ হাজার ৮২০ জন। এবার মোট ২ লাখ ১ হাজার ৫১৩ পরীক্ষার্থী বেড়েছে। জেএসসিতে ২৯ হাজার ৬৭৭টি বিদ্যালয়ের মোট ২২ লাখ ৬৭ হাজার ৩৪৩ এবং জেডিসিতে ৪ লাখ ২ হাজার ৯৯০ পরীক্ষার্থী অংশগ্রহণ করবে। এ ছাড়া ২০১৮ সালের জেএসসি পরীক্ষায় অনিয়মিত ২ লাখ ৪৬ হাজার ৩৫৩ এবং জেডিসির ৩৪ হাজার ২৫১ পরীক্ষার্থী অংশআরো পড়ুন


কঠোর নিরাপত্তার মধ্যে সর্দার বল্লভভাই প্যাটেলের মূর্তি উন্মোচন করলেন মোদি

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি আজ বুধবার ‘লৌহ মানব’ সর্দার বল্লভভাই প্যাটেলের মূর্তি উন্মোচন করেছেন। সর্দার বল্লভভাই প্যাটেলের আজ ১৪৩তম জন্মশতবার্ষিকী। সর্দার বল্লভভাই প্যাটেল ১৯৪৭ সালে ভারত স্বাধীনের পর দেশটিকে ঐক্যবদ্ধ করতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন। বিশ্বের উচ্চতম এ মূর্তি উদ্বোধনে স্থানীয় জনসাধারনের হুমকি থাকায় উদ্বোধনের প্রাক্কালে সেখানে হাজার হাজার পুলিশ মোতায়েন করা হয়। গুজরাটের কেওড়িয়াতে নর্মদা নদীর উপর তৈরি করা হয়েছে বল্লভ ভাই প্যাটেলের মূর্তিটি। নাম দেওয়া হয়েছে ‘স্ট্যাচু অব ইউনিটি’। মূর্তিটি তৈরী করতে ব্যয় হয়েছে ২৯৯০ কোটি রুপি। এটির জন্য ২০ হাজার বর্গ মিটার এলাকা সাজানো হয়েছে। ১৮২ মিটারআরো পড়ুন


আফগানিস্তানে সেনা হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত, নিহত ২৫

আফগানিস্তানের পশ্চিমাঞ্চলে বুধবার একটি সেনা হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত হয়ে ২৫ আরোহীর সকলেই প্রাণ হারিয়েছে। কর্মকর্তারা এ কথা জানান। খবর এএফপি’র। ফারাহ প্রদেশের গভর্ণরের মুখপাত্র নাসির মেহরি বলেন, পাশের হেরাত প্রদেশে যাওয়ার পথে আনার দারা জেলায় হেলিকপ্টারটি বিধ্বস্ত হয়। এতে দুই পাইলট ও ২৩ যাত্রী ছিল। খারাপ আবহাওয়ার কারণে এ দুর্ঘটনা ঘটে। তবে তালেবান জঙ্গিরা হেলিকপ্টারটি ভূপাতিত করার দাবি করেছে। মেহরি বলেন, নিহতদের মধ্যে পশ্চিম আফগানিস্তানের ডেপুটি সেনা কোর কমান্ডার এবং ফারাহ প্রাদেশিক পরিষদের প্রধানও রয়েছেন।


এক সপ্তাহের মধ্যে নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা হতে পারে

আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা হতে পারে বলে জানিয়েছেন নির্বাচন কমিশন (ইসি) সচিবালয়ের সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ। রাজধানীর আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে নির্বাচনের প্রস্তুতি বিষয়ে এক আন্তঃমন্ত্রণালয় বৈঠক শেষে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, তফসিল ঘোষণার সাত দিনের মধ্যে প্রত্যেকটি নির্বাচনী এলাকার প্রচারণামুলক সব ব্যানার-পোষ্টার সরিয়ে ফেলতে স্থানীয় সরকার বিভাগকে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। তিনি বলেন, ঋণখেলাপীদের মনোনয়নপত্র দেয়ার আগেই তাদের তালিকা রিটার্নিং অফিসারের কাছে জমা দিতে বাংলাদেশ ব্যাংক এবং ব্যাংকিং ডিভিশনকে বলা হয়েছে। সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে হেলালুদ্দিন আহমদ বলেন, মনোনয়নপত্রের সাথে আয়কর রিটার্নের বাধ্যবাধকতা উঠিয়ে দেয়া হয়েছে। যারাআরো পড়ুন


শেখ হাসিনা’র নেতৃত্বে ১৪দলীয় জোটের অনড় অবস্থান মুক্তিযুদ্ধে’র বাংলাদেশ গড়ার দ্বার উম্মুক্ত প্রায়।

রুহুল আমিন মজুমদারঃ-বাংলাদেশের আপামর জনগনের মনেপ্রানে কামনা ছিল–মুক্তিযুদ্ধের বাংলাদেশে’র সরকার পরিচালনাকারী জোট ও দল এবং সরকারের বাইরে’র একাধিক বিরোধী দল ও জোট, দেশপ্রেমিক এবং মুক্তিযুদ্ধের পক্ষশক্তি’র অভ্যন্তরের হবে। জনগন নির্ভয়ে তাঁদের প্রতিনীধি নির্বাচনার্থে ভোট কেন্দ্রে যাবে, তাঁর পছন্দের প্রার্থিকে ভোট দিয়ে এসে নিজ বাসগৃহে নাকে তেল দিয়ে সারারাত ঘুমাবে। সকালে ঘুম থেকে উঠে নির্ভয়ে জানতে পারবে, তাঁর প্রদত্ত ভোটে, তাঁর প্রার্থি জিতেছে, নাকি হেরে গেছে। জিতলেও উৎফুল্লতার কিছুই থাকবেনা, হারলেও উৎকন্ঠার কোন ব্যাপার তাঁকে স্পর্ষ করবেনা। নির্বাচনের আগে ও পরে কোন দেশবিরোধী অশুভশক্তি তাঁর ভোটের নাগরিক অধিকার চিনিয়ে নিতে তান্ডবআরো পড়ুন


অসুস্থ ক্রিকেটার চামেলীর সহযোগীতায় মেয়র লিটন

জাতীয় মহিলা দলের সাবেক ক্রিকেটার অসুস্থ চামেলী খাতুনের চিকিৎসার সার্বিক দায়িত্ব নিলেন রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন। বুধবার (৩১ অক্টোবর) বেলা ১১টার দিকে চামেলীকে তার বাসায় দেখতে যান মেয়র লিটন। এ সময় তাৎক্ষণিক তিনি চামেলীর উন্নত চিকিৎসার জন্য নগদ এক লাখ টাকা প্রদান করেন। জানা গেছে, আট বছর থেকে লিগামেন্ট ছিঁড়ে যাওয়াসহ মেরুদন্ডে হাড়ের ব্যথা নিয়ে বর্তমানে মূমুর্ষ অবস্থায় আছেন চামেলি। মেরুদন্ডের দুই হাড়ের ফাঁকে থাকা নরম ডিস্কগুলো নষ্ট হয়ে যাওয়ায় অবস হয়ে যাচ্ছে তার পুরো ডান পাশ। গতকাল মঙ্গলবার বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে চামেলীকে নিয়ে সংবাদ প্রকাশিত হলে বিষয়টিআরো পড়ুন