প্রাণের ৭১

শুক্রবার, মে ৩rd, ২০১৯

 

স্মৃতিশক্তি ও ব্রেনের ক্ষমতা বৃদ্ধি করবে যে খাবার

স্মৃতিশক্তি সজাগ রাখতে মস্তিষ্ক ঠিক রাখা খুবই জরুরি। ভালো খাওয়াদাওয়া করলে তবেই স্মৃতিশক্তি সজাগ রাখা সম্ভব। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, আখরোটে রয়েছে বিভিন্ন রকমের ভিটামিন, মিনেরেলস, ওমেগা ৩, ফ্যাটি অ্যাসিডসহ বিভিন্ন রকমের ফাইবার, যা স্মৃতিশক্তি বাড়ায় এবং এর সঙ্গে সঙ্গে শরীরে থাকা উপকারী ব্যাক্টেরিয়ার সংখ্যাও বাড়ায়। সামুদ্রিক যে মাছগুলোর মধ্যে তেল বেশি, তাদের মধ্যে এমন কিছু উপাদান আছে; যেমন- ফ্যাটি অ্যাসিড, ওমেগা-৩ ইত্যাদি, যা স্মৃতিশক্তি বাড়াতে দারুণভাবে সাহায্য করে। শীতকালে আমরা সাধারণত কফি খেয়ে থাকি। কফি ব্রেনের ক্ষমতা এতটাই বাড়িয়ে তোলে, যার ফলে কোনো কঠিন রোগ সহজে কাছে আসে না। ব্রেনের মধ্যেআরো পড়ুন


ঘূর্ণিঝড়ে নিরাপদ থাকতে কী করবেন?

ঘূর্ণিঝড় ফনির প্রবাহে রাজধানীসহ সারা দেশে বৃষ্টিপাত হচ্ছে। ফনি আজ (শুক্রবার) বাংলাদেশের খুলনা উপকূলে দমকা ও ঝড়ো হাওয়ার সৃষ্টি করতে পারে। যা সারা রাত পর্যন্ত চলবে। এছাড়া শনিবার পর্যন্ত এর প্রভাব থাকবে। এজন্য পায়রা ও মংলা সমুদ্রবন্ধরকে ৭ নম্বর বিপদ সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে। চট্টগ্রামকে ৬ নম্বর বিপদ সংকেত বিপদ সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে ও কক্সবাজারে ৪ নম্বর হুশিয়ারি সংকেট দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে। সকল মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারকে নিরাপদ আশ্রয়ে থাকতে পরামর্শ দেয়া হয়েছে। আসুন জেনে নেই ঘূর্ণিঝড়ে নিরাপদ থাকতে কী করবেন? ১. কর্তৃপক্ষ সংকেত দেয়ারআরো পড়ুন


৪৪ সন্তানের জন্মদাত্রী!

মাত্র ১৩ বছর বয়সে বিয়ে হয় মরিয়ম নাবাতানজির। পরের বছরই জন্ম দেন যমজ সন্তানের। সেই শুরু, বিবাহিত জীবনের ২৬ বছরে একে একে জন্ম দিয়েছেন ৪৪ সন্তান! এর মধ্যে মারা গেছে ছয়জন। বর্তমানে ৩৮ সন্তান নিয়ে জীবন সংগ্রাম চালিয়ে যাচ্ছেন স্বামীহীনা ৩৯ বছর বয়সী উগান্ডার এ নারী। সম্প্রতি বিবিসির সাবেক সাংবাদিক কাসিম কায়িরা ওই নারীর সাক্ষাৎকার নেন। মরিয়ম জানান, বিয়ের সময় তার স্বামীর বয়স ছিল ২৭। আগে তার একাধিক স্ত্রী ছিল এবং তাদের কয়েক সন্তানও রয়েছে। সেই সন্তানদের নিয়ে শুরু হয় মরিয়মের সংসার। ৪৪ সন্তানের মধ্যে ছয়বার যমজ, চারবার তিনজন ওআরো পড়ুন


ঘূর্ণিঝড়ের দিক পরিবর্তন: যে এলাকাগুলোতে আঘাত হানবে ফনি

ধেয়ে আসা ঘূর্ণিঝড় ফনির দিক পরিবর্তন হয়েছে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদফতর। ফলে এটি উপকূলীয় অঞ্চল দিয়ে আঘাত হানবে না। ঘূর্ণিঝড়টি দেশের মধ্যাঞ্চল দিয়ে আঘাত হানার আশঙ্কা প্রকাশ করা হয়েছে। শুক্রবার মধ্যরাতে আগারগাঁওয়ে আবহাওয়া অধিদফতর থেকে এসব তথ্য জানা যায়। এতে বলা হয়, ঘূর্ণিঝড় ফনি তার দিক পরিবর্তন করেছে। এটি সাতক্ষীরা, কুষ্টিয়া, নড়াইল, মেহেরপুর, দিনাজপুর, রাজশাহী ও রংপুর হয়ে ভারত চলে যেতে পারে। এর আগে আগারগাঁওয়ে আবহাওয়া অধিদফতরের পরিচালক শামছুদ্দীন আহমেদ সাংবাদিকদের জানান, ঘূর্ণিঝড় ফনি বাংলাদেশের উপকূলীয় অঞ্চলে নয়, দেশেল মধ্যাঞ্চলে আঘাত হানতে পারে। এটি সাতক্ষীরার উত্তর দিয়ে যশোর, ঝিনাইদহ, রাজশাহীআরো পড়ুন


ঝিনাইদহে ‘গোলগুলিতে’ যুবক নিহত, পুলিশের দাবি মাদক ব্যবসায়ী

ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুরে দু’দল মাদক ব্যবসায়ীর ‘গোলাগুলি’তে এক মাদক ব্যবসায়ী নিহত হয়েছেন বলে জানিয়েছে পুলিশ। শুক্রবার ভোররাতে উপজেলার কাগমারি বটতলা এলাকায় ‘গোলাগুলির’ এ ঘটনা ঘটে। নিহত ডাবলু মন্ডল (৩২) উপজেলার রেলস্টেশন এলাকার আফতাব মন্ডলের ছেলে। কোটচাঁদপুর থানার ওসি কাজী কামাল হোসেনের ভাষ্য, বৃহস্পতিবার রাতে গোলাগুলির সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় তারা। এ সময় ঘটনাস্থলে ডাবলুর লাশ পড়ে থাকতে দেখা যায়। এছাড়া সেখান থেকে ওয়ান শুটার গান, রাউন্ড গুলি ও কয়েক বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করা হয়েছে। মাদকের টাকা ভাগা-ভাগি নিয়ে নিজেদের মধ্যে ‘গোলাগুলিতে’ ডাবলু নিহত হয়েছে বলে ধারণা করছে পুলিশ। ওসি আরও জানান,আরো পড়ুন


দেশের জেল খানায়ও জীবনের নিরাপত্তা নাই?

দেশের জেল খানায়ও কি জীবনের কোন নিরাপত্তা নাই? উপজেলা নির্বাচনের ভাইস চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী, সাবেক থানা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার ও সাবেক মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান এর ছেলে এ্যাডঃ পলাশ চন্দ্র রায়ের প্রাণ প্রদীপকে জেলখানায় পুড়িয়ে হত্যা করা হয়েছে। দেশের হিন্দু সম্প্রদায়ের মানুষের উপর যে নির্যাতন থেমে যায় নাই তার প্রমাণ এই বর্বর হত্যাকান্ড। জেলখানার ভিতর এই বর্বর হত্যাকান্ডের বিষয়টি তদন্ত করে দোষী ব্যক্তির কঠোর শাস্তি নিশ্চিত করার জন্য পঞ্চগড়-১ আসনের সংসদ সদস্য জনাব মোহাম্মদ মাজহারুল হকের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি। একই সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হস্তক্ষেপ কামনা করছি। @David Rahaman


বাঙালির বিবেকবুদ্ধি কতদিনে জাগ্রত হবে? 

ঝড় আসলে গ্রামের মানুষ কতটা অনিশ্চয়তার মধ্যে দিয়ে সময় পার করে তা শহরে বাস করা বেশিরভাগ মানুষই বুঝবেনা। ছোটবেলায় ঝড়ের বেগে বেশ কয়েকবার আমাদের টিনের চাল উড়িয়ে নিয়ে গেছে। গ্রামের আর দশজন সাধারণ মানুষের মতোই আমার মা-ও একজন ধার্মিক মানুষ। ঝড় আসলে আজান দেবার কথা বলতেন হাফপ্যান্ট পরেই সেসময় দু’ভাই আজান দিতে লেগে যেতাম কিন্তু দাদার বানানো পুরনো ঘর হওয়ায় তা যথেষ্ট নড়বড়ে ছিল বলে আজানের সাথে শয়তান আগেভাগেই আপোষ রফা করে রাখায় ইটের দেয়াল ঠিক থাকলেও ছাউনি উঠিয়ে নিয়ে যেতে কার্পণ্য করেনি। ঝড় শেষে মা’কে বলতাম তোমার আল্লাহ আজানআরো পড়ুন