প্রাণের ৭১

সোমবার, ফেব্রুয়ারি ২৪th, ২০২০

 

তাজমহল দেখে অভিভূত ট্রাম্প দম্পতি।

তাজমহলকে এক পলক দেখার জন্য ব্যাকুল হয়ে থাকে মানুষ। ঐতিহাসিক এই স্থাপনা দেখে মুগ্ধ হননি এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া দুষ্কর। এবার সেই তাজমহল দেখে মুগ্ধ হয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও ফার্স্ট লেডি মেলানিয়া ট্রাম্প। সোমবার বিকালে সপরিবার তাজমহল যান ট্রাম্প। ট্রাম্পের জন্য আগে থেকেই সেজে উঠেছিল তাজমহল। আগ্রায় ট্রাম্পকে স্বাগত জানান উত্তরপ্রদেশের গভর্নর আনন্দীবেন পটেল এবং মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। তাজমহলে পৌঁছে ফটোশুট করেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। ভিজিটরস‌ বুকে লিখেন। ট্রাম্প লিখেন, ‘তাজমহল অনুপ্রাণিত করে। ভারতীয় সংস্কৃতির সমৃদ্ধ ও বৈচিত্র্যময় সৌন্দর্যের এক কালজয়ী প্রমাণ এটা। ধন্যবাদ ভারত।’ তার নীচে সই করেনআরো পড়ুন


শিশুর প্রতি যত্নবান হোনঃ

শিশুরাই পৃথিবীর হাসি-গান-আনন্দের নিরন্তর উৎস -মোহাম্মদ হাসান

শিশুরাই ভবিষ্যত কর্ণধার। ভবিষ্যত শান্তি, সংস্কৃতি ও সভ্যতা নির্ভর করে শিশুদের ওপর। সুখী, সুন্দর ও সমৃদ্ধশালী দেশ গড়বে এ শিশুরাই। পৃথিবীর হাসি-গান-আনন্দের নিরন্তর উৎস হলো তারা। আজকের শিশুরাই আগামীর স্বপ্নময় ভবিষ্যতের দিশারী। এদের মধ্যে কেউ হবে বিজ্ঞানী, ডাক্তার, ইঞ্জিনিয়ার, শিল্পী, কবি, সাহিত্যিক, সাংবাদিক, রাষ্ট্রনায়ক প্রভৃতি। আবার কেউ ঝরে যাবে ভবিষ্যতের ক্রুর, বৈরী পৃথিবীর ক্ষুধা দরিদ্র, পুষ্টিহীনতা, নিরাপত্তাহীনতার আবর্তে। জার্নাল অব ফাংশনাল মর্ফোলজি অ্যান্ড কিনেশিয়োলজিতে প্রকাশিত এক সমীক্ষায় জানিয়েছেন শিশুদের ছেড়ে দিন। মুক্ত করে দিন তাদের। তারা যেন নিজেদের মতো খেলাধুলা ও দৌড়াদৌড়ি করতে পারে। পাশাপশি তাদের দিতে হবে পুষ্টিকর খাদ্য।আরো পড়ুন


ব্যাংক নিয়ে টাউট প্রতারকরা ১লক্ষ টাকার ভুয়া সংবাদটি ছড়াচ্ছে – নওফেল

মাননীয় শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী জনাব মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল তার পেজবুক পাতাতে লেখেন – ব্যাংকে আমানতকারীরা বাংলাদেশে কবে সব সঞ্চয় খুইয়েছে তা আমার জানা নেই। এক শ্রেণীর টাউট প্রতারক একটি সংবাদ ছড়িয়ে বেড়াচ্ছে, ব্যাংক অবসায়িত হলে সরকার মাত্র এক লক্ষ টাকা দিবে। এটি ছড়িয়ে এক ধরনের আতংক ছড়ানোর চেষ্টা হচ্ছে। বাংলাদেশের ইতিহাসে যতগুলো ব্যাংক অবসায়ন হয়েছে সবগুলোতেই আমানতকারীরা তাদের অর্থ ফেরত পেয়েছে। দেরী হয়েছে, এই শুধু। একটি ব্যাংক অবসায়ন হলে তার দেয়া সকল ঋণ অর্থাৎ আদায়যোগ্য সকল ঋণ কিন্তু কুঋণ (বেড ডেট) হয়ে যায় না, এবং মাফ করে দেয়া হয় না।আরো পড়ুন


আত্মহত্যা করেছিলেন সালমান শাহ, হত্যার প্রমান পাওয়া যায় নি।

প্রয়াত নায়ক সালমান শাহকে হত্যার অভিযোগের প্রমাণ পায়নি তদন্ত সংস্থা পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনকে (পিবিআই)। দীর্ঘ তদন্তের পর পিবিআই বলছে, পারিবারিক কলহ ও মানসিক যন্ত্রণায় আত্মহত্যা করেছেন সালমান শাহ।   সোমবার বেলা সাড়ে ১১টায় রাজধানীর ধানমন্ডিতে পিবিআই সদর দফতরে সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানায় পিবিআই। পিবিআইর মহাপরিচালক বনজ কুমার মজুমদার সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন।     তিনি বলেন, সালমান শাহ রহস্যজনক মৃত্যুর মামলার তদন্ত প্রতিবেদন চূড়ান্ত করা হয়েছে। তাকে হত্যা করা হয়েছে এমন কোনো প্রমাণ পাওয়া যায়নি তদন্তে। আমরা সালমানের তখনকারী স্ত্রী সামিরাসহ সন্দেহভাজনদের বক্তব্য নিয়েছি। সবমিলে এটিই প্রতীয়মান হয়েছেআরো পড়ুন


আদালত এলাকাতে মামলার বাদীকে কোপাল আসামিরা।

সিলেট কোর্ট এলাকায় মামলার বাদিকে কুপিয়ে আহত করেছে আসামীরা।আহত দেওয়ান কামরুজ্জামান চৌধুরী কামরান বিয়ানীবাজার উপজেলার বালিঙ্গা গ্রামের দেওয়ান আব্দুল হাই এর ছেলে।     রবিবার দুপুর আড়াইটার দিকে সিলেট জজকোর্ট এলাকায় এ ঘটনাটি ঘটে।   স্থানীয় ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, আহত কামরান সিলেট আদালতে  বিয়ানীবাজার জি আর-মামলা (নং১৮৮/২০১৮) এর স্বাক্ষ্যগ্রহণ সংক্রান্ত কাজে আসেন।   এসময় ওই মামলার আসামী মো. রুহুল আমীন, আব্দুস সামাদ খান, মশিউর রহমান চৌধুরী, শিব্বির আহমদ খান, সবুজ আহমদ খান, মোহাম্মদ আলী, আবুল কালাম খান শেখ, জামাল হোসেন চৌধুরী সেলিমরা পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী দেওয়ান কামরুজ্জামান চৌধুরীআরো পড়ুন


দেশ বাঁচাতে বর্তমান সরকার অপসারণ করে কমিউনিস্ট সরকার প্রতিষ্ঠা করতে হবে- মুজাহিদুল

গণতন্ত্রহীনতা ও লুটপাট রুখো- দুঃশাসন হটাও, গদি-নীতি-ব্যবস্থা বদলাও, বিকল্প গড়ো’ শ্লোগান নিয়ে সিপিবি’র উদ্যোগে সারা দেশে দেশরক্ষা অভিযাত্রা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এরই ধারাবাহিকতায় আজ শনিবার বেলা ৩টায় ময়মনসিংহ বিভাগীয় সমন্বয় কমিটির উদ্যোগে অনুষ্ঠিত সমাবেশের উদ্বোধন করেন বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির (সিপিবি) সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম। উদ্বোধনী সমাবেশে কমরেড সেলিম বলেন, ‘আমরা একটি শোষণহীন সমাজ বিনির্মাণের লক্ষ্যে মহান মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করেছিলাম। কিন্তু বুর্জোয়া শাসকগোষ্ঠী মুক্তিযুদ্ধের সেই স্বপ্ন কেড়ে নিয়েছে। যার ফলে দেশ আজ ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে। সারা দেশে ক্যাসিনোর জোয়ার তৈরি করা হয়েছে। লুটপাটের রাজত্ব কায়েম হয়েছে। সমাজের ভেতর বৈষম্য চূড়ান্ত পর্যায়ে নিয়ে যাওয়াআরো পড়ুন