প্রাণের ৭১

শনিবার, ফেব্রুয়ারি ২৯th, ২০২০

 

সিঙ্গাপুরে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত দুই বাংলাদেশি সুস্থ হয়ে বাসায় ফিরেছেন।

সিঙ্গাপুরে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন থাকা দুই বাংলাদেশি সুস্থ হয়ে বাসায় ফিরেছেন। বাকি যারা আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন, তাদের অবস্থাও স্থিতিশীল। যে কোনো সময় তারাও হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র পাবেন।   করোনাভাইরাস পরিস্থিতি নিয়ে শনিবারের (২৯) নিয়মিত সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানিয়েছে সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউট (আইইডিসিআর)। এতে বক্তব্য রাখেন আইইডিসিআরের পরিচালক ডা. মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা।   তিনি বলেন, ‘আমাদের জন্য আনন্দের বিষয় হলো- সিঙ্গাপুরে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত আরও একজন বাংলাদেশি সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। আগের দিন আরও একজন বাসায় ফিরেছিলেন। যার অবস্থা জটিল ছিল, তিনি অপরিবর্তিত অবস্থায় রয়েছেন। বাকিরাআরো পড়ুন


ভারতের মেঘালয় এইবার উত্তপ্ত হচ্ছে।

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ দিল্লিতে হিন্দুত্ববাদীদের তাণ্ডব শুরুর পাঁচদিন পর মুখ খুলেছেন দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ।   দুর্বৃত্তদের সহিংস হামলায় দিল্লি যখন জ্বলছে এ নিয়ে এতোদিন আনুষ্ঠানিক কোনো বিবৃতি দেননি অমিত শাহ।   গত রোববার থেকে চলা পাঁচদিনের লুটতরাজ, ভাঙচুর আর জ্বালাও-পোড়াও নিয়ে কোনো কথাই বলেননি তিনি। অথচ দিল্লির আইনশৃঙ্খলা দেখভালের দায়িত্ব তারই।   তবে এবার দিল্লি দাঙ্গায় হত্যা ও ধ্বংসযজ্ঞ নিয়ে মুখ খুললেন অমিত শাহ।   মুখ খুলেই এ সহিংসতার জন্য বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলোকে দায়ী করেছেন তিনি।   শুক্রবার উড়িষ্যার এক জনসভায় অমিত শাহ বলেন, ‘বিরোধীরা নাগরিকত্ব আইন নিয়ে জনগণের মধ্যেআরো পড়ুন


যে নামটি নেওয়ার কারনে টুথপেস্ট দিয়ে মুখ ধুতে বললেন মোহাম্মদ জাফর ইকবাল।

যে দেশটির বিরুদ্ধে যুদ্ধ করে বাংলাদেশ স্বাধীন হয়েছে সে দেশটির নামও মুখে নিতে ইচ্ছুক নন অধ্যাপক জাফর ইকবাল।   বিশেষকরে আজকের শিশুরা যেন পাকিস্তানের নাম মুখে না আনে সে আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।   শুক্রবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় খেলার মাঠে ‘মুক্তির উৎসব’ নামে এক অনুষ্ঠানে শিশুরা পাকিস্তানের নাম উচ্চারণ করলে এসব কথা বলেন ড. জাফর ইকবাল।   কোমলমতি শিশু-কিশোরদের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘তোমরা পাকিস্তানের নামও মুখে নিও না। আর নিয়ে ফেললে মুখ টুথপেস্ট দিয়ে ধুয়ে নিতে হবে।’   অনুষ্ঠানে জাফর ইকবাল শিশুদের প্রশ্ন করেন, প্রশ্ন নং ১ – আমাদের দেশের নাম কী?আরো পড়ুন


দিল্লির দাঙ্গাবাজদের হাত থেকে বহু মানুষকে রক্ষা করেছেন যে পুলিশ কর্মকর্তা

হিন্দুত্ববাদীদের তাণ্ডবে ভারতের রাজধানী দিল্লি যখন জ্বলছিল, তখন অদূরেই প্রীতি ক্রিকেট ম্যাচ উপভোগে মত্ত ছিলেন পুলিশরা।   গত রোববার থেকে চলা ওই সহিংসতায় পুলিশের নিষ্ক্রিয়তা নিয়ে অভিযোগের শেষ নেই।   এমন সব অভিযোগের মধ্যেই দাঙ্গা থেকে অনেক মানুষকে রক্ষা করে প্রশংসা কুঁড়াচ্ছেন ভারতের এক পুলিশ কর্মকর্তা।   ওই পুলিশ কর্মকর্তার নাম নিরাজ জাদাউন এবং দিল্লির প্রতিবেশি রাজ্য উত্তর প্রদেশে তিনি সুপারিন্টেন্ডেন্ট পদে কর্মরত বলে জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি।   বিবিসি জানায়, দিল্লি দাঙ্গার তৃতীয় দিনে দিল্লির কারায়াল নগরের সীমান্তবর্তী একটি চেকপয়েন্টে টহল দিচ্ছিলেন নিরাজ জাদাউন। এ সময় ওই এলাকা থেকেআরো পড়ুন