প্রাণের ৭১

বৃহস্পতিবার, মার্চ ১৯th, ২০২০

 

করোনাভাইরাঃ যা জানা জরুরি

চীন থেকে ছড়িয়ে পড়া কোভিড-১৯ পৌঁছেছে বাংলাদেশেও। রোগটি নিয়ে আতঙ্কিত না হয়ে সচেতন থাকার পরামর্শ দিচ্ছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। এ বিষয়ে বেশকিছু সাধারণ প্রশ্ন এবং সেগুলোর উত্তর দেয়া হয়েছে সংস্থার ওয়েবসাইটে। করোনাভাইরাস কী? করোনাভাইরাস হলো ভাইরাসের এক বিশেষ পরিবার, যা মানুষ ও অন্যান্য প্রাণির বিভিন্ন রোগের কারণ। মানবদেহে এর আগে মার্স করোনাভাইরাস, সার্স করোনাভাইরাস সংক্রমণ দেখা গেছে। কোভিড-১৯ কী? কোভিড-১৯ হলো সবশেষ আবিষ্কৃত করোনাভাইরাসের মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া রোগ। নতুন এই ভাইরাস এবং রোগটি গত বছরের ডিসেম্বরে চীনের উহানে ছড়িয়ে পড়ার আগ পর্যন্ত অজানা ছিল। কোভিড-১৯ এর লক্ষণ কী? সবচেয়ে সাধারণআরো পড়ুন


বাংলাদেশের করোনা প্রস্তুতি !

বেশ কিছুদিন থেকেই আমরা করোনাভাইরাসের কথা বলে আসছিলাম। আমি বিষয়টাকে কতটুকু গুরুত্ব দেব বুঝতে পারছিলাম না। সাংবাদিকরা এক-দুইবার আমাকে করোনাভাইরাস নিয়ে কী করা উচিত সেটা জিজ্ঞেস করেছেন, আমি যথেষ্ট বিনয় সহকারে বলেছি আমি এই বিষয়ের বিশেষজ্ঞ নই, কিছু একটা বলে ফেলা উচিত হবে না। জনস্বাস্থ্য নিয়ে যারা কাজ করেন তারা কী বলেন সেটাই আমাদের শোনা উচিত। এ রকম সময়ে আমার কাছে একটা গ্রাফ এসে পৌঁছেছে। এটা করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের সংখ্যার একটা প্লট। বিভিন্ন দেশের তথ্য দেয়া আছে এবং আমি অবাক হয়ে দেখলাম সব দেশের রোগী বেড়ে যাওয়ার হার হুবহু এক।আরো পড়ুন


চীনের উহানে শূন্যে নেমে আসলো করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা!

করোনার উৎপত্তিস্থল চীনের হুবেই প্রদেশের রাজধানী উহান শহরে করানোভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা শূন্যে নেমে এসেছে। বৃহস্পতিবার (১৯ মার্চ) সকালে হুবেই প্রদেশের স্বাস্থ্য কমিশন জানিয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় উহান শহরসহ পুরো হুবেই প্রদেশে নতুন করে কেউ আক্রান্ত হয়নি। করোনাভাইরাস গত ডিসেম্বর থেকে ছড়ানোর পর এই প্রথম এই হুবেই প্রদেশসহ উহানে আক্রান্তের সংখ্যা শূন্যে নেমে আসলো। তবে গত ২৪ ঘণ্টায় হুবেই প্রদেশে ৮ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানানো হয়। এদিকে হুবেইতে কেউ আক্রান্ত না হলেও দেশটির কয়েকটি প্রদেশে নতুন করে কয়েকজন এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে।


হাতে কোয়ারেন্টাইন স্ট্যাম্প, আইসোলেশনে অমিতাভ বচ্চন

হাতে সরকারি হোম কোয়ারেন্টাইনের স্ট্যাম্প। স্বেচ্ছায় নিজেকে গৃহবন্দি করে ফেললেন বলিউডের শাহেনশা অমিতাভ বচ্চন। বুধবারই আইসোলেশন যাওয়ার আগে মহারাষ্ট্র সরকারের কোয়ারেন্টাইন স্ট্যাম্প লাগিয়ে টুইট করেন বিগ বি। জানা যাচ্ছে, যেসমস্ত ব্যক্তিদের আইসোলেশনে পাঠানো হচ্ছে, এবং যাঁরা স্বেচ্ছায় কোয়ারেন্টাইনে যাচ্ছেন, তাঁদের হাতে সরকারি ভাবে স্ট্যাম্প লাগানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হচ্ছে। যাতে কোনওভাবে এই ব্যক্তিরা জনসমক্ষে আসেলে তাঁদেরকে চিহ্নিত করা যায়। অমিতাভ বচ্চনের টুইট থেকে জানা যাচ্ছে, সাধারণত ভোট দেওয়ার পর যে কালি ব্যবহার করা হয় সেটা দিয়েই এই স্ট্যাম্প লাগানো হচ্ছে। আর এই কালি সহজে ওঠার নয়। টুইটে সকলকে সাবধানে থাকার কথাওআরো পড়ুন