প্রাণের ৭১

praner71

 

মিরসরাইতে চিনকি আস্তানায় আন্তঃ নগর রেল পরিষেবার দাবি জানালেন আনিস আলমগীর।

চট্টগ্রামের মিরসরাই উপজেলার উপর দিয়ে চলে গেছে ট্রেন লাইন। রেলের অনেক গুরুত্বপূর্ণ অফিস চট্টগ্রামে হলেও   পরিপূর্ণ পরিকল্পনার অভাবে সুযোগ সুবিধা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে অত্র এলাকার সাধারন মানুষ। অনেকে ইচ্ছে থাকা পরও ট্রেন ভ্রমণ করতে উৎসাহিত হচ্ছে না।  বর্তমানে মিরসরাই একটি সম্ভাবনাময় উপজেলা, মিরসরাই অর্থনৈতিক অঞ্চল,নতুন নতুন মিল কারখানা স্থাপিত হওয়ায়  ও পাহাড়ী ঝর্ণা সহ পর্যটন স্থান গুলো  পরিদর্শন করতে  দেশের বিভিন্ন অঞল থেকে ভ্রমণ করতে অনেক মানুষ আসে উপজেলাটিতে । বিভিন্ন সময় বিছিন্ন ভাবে অনেক চিনকি আস্তানায় রেলস্টেশনে আন্তঃ নগর রেলের পরিষেবা চালু করার দাবি করে আসছে। মিরসরাইয়ের কৃতি সন্তানআরো পড়ুন


বাংলাদেশের লাল শাড়ীতে ওটেলিয়া

দোহারা গড়ন। বাদামি রঙের চুল। গায়ে জড়ানো লাল টকটকে বাংলাদেশি শাড়ি। যেনো সদ্য ফোটা  লাল গোলাপ। রোববার এমন বেশেই নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্টে ছবি দিয়েছেন রোমানিয়ান সংগীতশিল্পী ওটিলিয়া ব্রুমা। এখন বাংলাদেশেই অবস্থান করছেন সে। ছবিটর ক্যাপশনে লিখেছেন, বাংলাদেশর ট্রেডিশনাল পোশাকে।’ ওটিলিয়া ব্রুমার বিশ্বজুড়ে কোটি কোটি অনুসারী তার। যাকে বলা হয় ‘বিলিয়নিয়ার খ্যাত গায়িকা।  প্রথমবারের মতো বাংলাদেশে এসেছেন তিনি। দেশের একটি মুঠোফোন কোম্পানির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অংশ নিতেই বাংলাদেশে আসা ওটিলিয়ার।


তোমায় হারায় পিতা

তোমায় হারায় পিতা কুতুব বখতেয়ার বঙ্গোপসাগরে সবাই ঢেউয়ের শব্দ শুনে আর আমি প্রতিনিয়ত শুনছি বঙ্গপিতা তোমার রক্তের গর্জন। প্রতিদিন ভোরে সবাই পাখির কন্ঠে শুনে মিষ্টি গান পিতা আমি শুনি ৭মার্চের তোমার সেই বজ্র আহ্ববান। কি বলছে ওরা??? তোমাকে হারিয়ে, তোমার শোকে ওরা কাঁদছে!!! মন আমার বলে আমি কাদবোনা, আমিতো তোমায় হারায়নি, তুমি মিশে আছ বাংলাদেশ জুড়ে, মাঠে ঘাটে, জলে স্থলে তোমাকে হারালেতো স্বপ্নেরা সব যাবে বিফলে।


২৫ শে জুন শুভ উদ্বোধন হচ্ছে পদ্মা বহুমুখী সেতু

শেখ হাসিনার সাহসিকতার প্রতীক পদ্মা সেতু – এম এ কাশেম

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, বাঙ্গালীর সকল অর্জনে পুরোধা, যেমন পদ্মা সেতু। হাজার বছরের বাঙ্গালী জাতির মধ্যে নিজেরা নিজেদেরকে শাষন করার কোন নজির দেখা যায় না। একমাত্র আওয়ামী লীগ এবং বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১৯৭১ সনের ১৬ই ডিসেম্বর বিজয় অর্জন করে একটা স্বাধীন -সার্বভৌম দেশ, বাংলাদেশের অর্জন হয়েছিল। আমরা বাঙ্গালীদের জন্য এটাই আমার দৃস্টিতে আমাদের বড় অর্জন। রক্ত সাগর আর সভ্রমের বিনিময়ে আমাদের স্বাধীনতা কিন্তু এটা না হলে আজকে আমাদের যে পরিচিতি, যে সম্মান, এগিয়ে যাওয়ার সোপান, তার কোনটাই আমরা আশা করতে পারতাম না। স্বাধীনতার পঞ্চাশ বৎসর আমরা অতিক্রম করেছি। এর মধ্যেআরো পড়ুন


ফ্রান্স আওয়ামীলীগের সভাপতি এম এ কাসেম হাসপাতালে ভর্তি, দোয়া প্রার্থনা।

অত্যন্ত দুঃখ ভারাক্রান্ত মনে সকলের অবগতি ও দোয়া কামনার্থে জানানো যাচ্ছে যে, ফ্রান্স আওয়ামী লীগের সভাপতি এম একাশেম প্যারিসের একটি হাসপাতালে চিকিত্সাধীন আছেন। উনার পেটে একটি অপারেশন হয়েছে।  বর্তমানে তিনি ডাক্তারদের গভীর পর্যবেক্ষনে  চিকিৎসাধীন রয়েছেন। আমরা ফ্রান্স আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠনের পক্ষ থেকে তাঁর আশু রোগ মুক্তি কামনা করছি এবং সংশ্লিষ্ট সকলের নিকটদোয়া প্রার্থনা করছি। বার্তা প্রেরক, ফ্রান্স আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন কয়েছ।


কিছু মানুষ দেশের উন্নয়ন ও অর্জনকে মেনে নিতে পারছে না বলে প্রধানমন্ত্রীর বিস্ময় প্রকাশ

বাংলাদেশের কোনো উন্নয়ন ও অর্জনকে দেশের কিছু মানুষ কেন মেনে নিতে পারছে না এমন প্রশ্ন তুলেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশের উন্নয়ন দেখে কেন একদল মানুষ মনে কষ্ট পায়? কেন তারা কোন অর্জনকে বাংলাদেশের অর্জন বলে মেনে নিতে পারছে না?’ প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আন্তর্জাতিকভাবে এত বাধা, তবুও নিজেদের অর্থে পদ্মা সেতু করেছি। তারপরও কিছু মানুষ এটিকে অর্জন হিসেবে নিতে পারে না।’ ‘কেন তাদের এই দৈন্যতা?’ কোথায় তাদের সমস্যা? সে প্রশ্নও তোলেন তিনি। আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কারামুক্তির ১৪তম বার্ষিকী উপলক্ষে গণভবনে আওয়ামী লীগ ও এর সহযোগী সংগঠনেরআরো পড়ুন


আজ বঙ্গবন্ধু কন্যার কারামুক্তি দিবস।

আজ  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কারামুক্তি দিবস দীর্ঘ ১১ মাস কারাভোগের পর ২০০৮ সালের ১১ জুন সংসদ ভবন চত্বরে স্থাপিত বিশেষ কারাগার থেকে মুক্তি পান তিনি। সেনাসমর্থিত ১/১১-এর তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সময় ২০০৭ সালের ১৬ জুলাই গ্রেফতার হয়েছিলেন বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ সময় কারাগারের অভ্যন্তরে শেখ হাসিনা অসুস্থ হয়ে পড়েন। তখন বিদেশে চিকিৎসার জন্য তাকে মুক্তি দেয়ার দাবি ওঠে বিভিন্ন মহল থেকে। আওয়ামী লীগসহ অন্যান্য অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের ক্রমাগত চাপ, আপসহীন মনোভাব ও অনড় দাবির মুখে তৎকালীন তত্ত্বাবধায়ক সরকার শেখ হাসিনাকে মুক্তি দিতে বাধ্য হয়। এরপর থেকে দিনটি শেখ হাসিনারআরো পড়ুন


বাংলাদেশ শ্রীলঙ্কা নয় : মার্কিন রাষ্ট্রদূত

ঢাকায় নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত পিটার হাস আজ শ্রীলঙ্কার পরিস্থিতির উল্লেখ করে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক পরিস্থিতি সম্পর্কে কিছু মহলের জল্পনা খন্ডন করে বলেছেন, সামষ্টিক আর্থিক ব্যবস্থাপনার দিক থেকে বাংলাদেশ “অত্যন্ত ভালো” করেছে। কূটনৈতিক সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময়কালে তিনি বলেন, “বাংলাদেশ মূলত শ্রীলঙ্কা নয়। বাংলাদেশ কার কাছ থেকে এবং কোন শর্তে অর্থ ধার করবে সে বিষয়ে অত্যন্ত সতর্কতা অবলম্বন করেছে”। হাস বলেন, চীনের কাছ থেকে বাংলাদেশের ঋণ নেয়ার পরিমাণ তুলনামূলকভাবে কম। ঢাকা বৈদেশিক অর্থায়নের জন্য এশিয়ান ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক (এডিবি), বিশ্বব্যাংক গ্রুপ এবং জাপানকে বেশি অগ্রাধিকার দেয়। রাষ্ট্রদূতের বিশ্লেষণ অনুসারে বাংলাদেশের এমন পরিস্থিতির মুখোমুখি হওয়ারআরো পড়ুন


সিরিয়ার নতুন সংবিধান বিষয়ে আলোচনায় সামান্য অগ্রগতি

সিরিয়ার নতুন সংবিধান প্রনয়ণ বিষয়ে অষ্টম দফার আলোচনা শুক্রবার শেষ হয়েছে। এক্ষেত্রে প্রতিদ্বন্দ¦ী বিরোধী দলগুলোর সাথে আলোচনায় একেবারে যতসামান্য অগ্রগতি হয়েছে। জাতিসংঘ মধ্যস্থতাকারী একথা জানান। খবর এএফপি’র। ২০১৯ সালের সেপ্টেম্বরে সিরিয়ার সাংবিধানিক কমিটি গঠন এবং এর এক মাস পর প্রথম বৈঠক আয়োজন করা হয়। এ ব্যাপারে সম্ভাব্য আলোচনার লক্ষ্য যুদ্ধপ্রবণ এদেশের সংবিধান পুনর্লিখন । এক্ষেত্রে আশা করা হচ্ছে এই আলোচনা বৃহত্তর রাজনৈতিক প্রক্রিয়াকে এগিয়ে নেওয়ার সুযোগ করে দিতে পারে। জাতিসংঘ দূত গির পেডারসানের মধ্যস্থতায় প্রেসিডেন্ট বাশার আল-আসাদের সরকার, বিরোধী দল ও সুশীল সমাজের ১৫ প্রতিনিধির  মধ্যে এই আলোচনা হয়। তবেআরো পড়ুন


ইউক্রেন যুদ্ধের ১০০ দিন অতিবাহিত : বিজয়ের অঙ্গীকার ব্যক্ত জেলেনস্কির

ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলে রাশিয়ার সৈন্যরা চূড়ান্ত হামলায় ছালানো সত্ত্বেও শুক্রবার প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি এই যুদ্ধে বিজয়ী হবেন বলে অঙ্গীকার ব্যক্ত করেছেন। জাতিসংঘ এখন বৈশ্বিক খাদ্য সংকট এড়াতে এবং দেশটি থেকে কয়েক মিলিয়ন খাদ্যশস্য বের করে নেয়ার চেষ্টা করছে। ভøাদিমির পুতিন গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে সৈন্য পাঠানোর নির্দেশ দেওয়ার ১০০ দিনের বেশী অতিক্রান্ত হয়েছে, এতে হাজার হাজার লোক প্রাণ হারিয়েছে, লাখ লাখ লোক দেশ ছেড়ে পালিয়েছে এবং শহরগুলো ধ্বংসস্তুপে পরিণত হয়েছে। ইউক্রেনের তীব্র প্রতিরোধে রাশিয়ার অগ্রযাত্রা ধীর হয়ে পড়ায় এবং রাজধানী কিয়েভ দখলের জন্য লড়াইয়ে রাশিয়াকে বাধ্য হয়ে কিয়েভের আশপাশের অঞ্চল থেকেআরো পড়ুন