প্রাণের ৭১

praner71

 

মুক্তিযুদ্ধকালে বুদ্ধিজীবী হত্যা এবং বিচার

১৯৭১-এর ৯ মাসে ৫৬ হাজার বর্গমাইলের এই বাংলাদেশে যে গণহত্যা হয়েছে সেটি ছিল অত্যন্ত সুপরিকল্পিত। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর বিশ্বের কোথাও এ ধরনের গণহত্যা ঘটেনি। ’৭১-এর গণহত্যার একটি ভয়ঙ্কর অভিব্যক্তি হচ্ছে তালিকা প্রস্তুত করে দেশের শীর্ষস্থানীয় বুদ্ধিজীবী ও পেশাজীবীদের নির্মমভাবে হত্যা করা।   পরাজয় নিশ্চিত জেনে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর দ্বারা প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত জামায়াতের দলীয় ঘাতক বাহিনী ‘আলবদর’ এই বুদ্ধিজীবী হত্যা কার্যকর করেছিল, যার নীলনকশা প্রণয়ন করেছিলেন জামায়াতের শীর্ষ নেতারা।   জামায়াতে ইসলামীর তৎকালীন ছাত্র সংগঠন ইসলামী ছাত্র সংঘকে রূপান্তর করা হয়েছিল ‘আলবদর’ বাহিনীতে, যার নেতৃত্বে ছিলেন ছাত্র সংঘের শীর্ষ নেতা মতিউর রহমানআরো পড়ুন


গণহত্যার দায় প্রকাশ্যে স্বীকার করতে সুচির প্রতি ৭ নোবেলজয়ীর আহ্বান

রাখাইনে রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে গণহত্যাসহ নৃশংস অপরাধের বিচারে আর কিছুক্ষণের মধ্যে হেগে জাতিসংঘের সর্বোচ্চ আদালতে আসামীর কাঠগড়ায় দাঁড়াচ্ছেন মিয়ানমারের নেত্রী অং সান সুচি। এ আদালতে তিনি তার দেশের সেনাবাহিনীর পক্ষ অবলম্বন করছেন। এ জন্য সারা বিশ্ব থেকে তার দিকে বাঁকা চোখে তাকাচ্ছেন পর্যবেক্ষকরা। তবে এই মুহূর্তে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ খবর হলো, রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে গণহত্যা সহ চালানো অপরাধ প্রকাশ্যে স্বীকার করে নিতে অং সান সুচির প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন সাতজন নোবেল পুরস্কার বিজয়ী। তারা হলেন ২০০৩ সালে শান্তিতে নোবেল পুরস্কার বিজয়ী ইরানের শিরিন এবাদি, ২০১১ সালে শান্তিতে নোবেল পুরস্কার বিজয়ী লাইবেরিয়ার লিমাহ গোউই, ২০১১আরো পড়ুন


ওসি মোয়াজ্জেমের ৮ বছরের কারাদণ্ড ও ১৫ লক্ষ টাকা অর্থদণ্ড।

ফেনীর মাদরাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফির বক্তব্য ভিডিও করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেয়ার অভিযোগে সোনাগাজী মডেল থানার সাবেক ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোয়াজ্জেম হোসেনের ৮ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে ট্রাইব্যুনাল। সেইসঙ্গে তাকে ১৫ লাখ টাকা অর্থদণ্ডে দণ্ডিত করা হয়েছে। অনাদায়ে আরও ছয় মাস কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। বৃহস্পতিবার (২৮ নভেম্বর) বাংলাদেশ সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক মোহাম্মদ আস-শামস জগলুল হোসেন এ রায় ঘোষণা করবেন। এর আগে গত ২০ নভেম্বর রাষ্ট্র ও আসামিপক্ষের যুক্তি উপস্থাপন শেষে রায় ঘোষণার জন্য ২৮ নভেম্বর দিন ধার্য করেন বাংলাদেশ সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক মোহাম্মদ আস-শামস জগলুল হোসেন। এ মামলায় ১২আরো পড়ুন


মিয়ানমারের রাসায়নিক অস্ত্রের মজুদের অভিযোগ যুক্তরাষ্ট্রের।

মিয়ানমারের হাতে নিষিদ্ধ রাসায়নিক অস্ত্রের মজুদ থাকতে পারে। একই সঙ্গে তারা রাসায়নিক অস্ত্র নিষিদ্ধ বিষয়ক বৈশ্বিক কনভেনশন লঙ্ঘন করে থাকতে পারে। এমন আশঙ্কা প্রকাশ করেছে যুক্তরাষ্ট্র।   অর্গানাইজেশন ফর দ্য প্রহিবিশন অব ক্যামিকেল উইপনস (ওপিসিডব্লিউ)-এর বার্ষিক সভায় যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ডেপুটি অ্যাসিসট্যান্ট সেক্রেটারি থমাস ডি নান্নো এমন তথ্য প্রকাশ করেছেন।   তিনি বলেছেন, দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার এই দেশটির ‘ঐতিহাসিক’ একটি স্থাপনায় এখনও অস্ত্র থাকতে পারে। ওই স্থাপনা থেকে প্রস্তুত করা হতো বিষাক্ত মাস্টার্ড গ্যাস। এমন রাসায়নিক অস্ত্রের মজুদের বিষয়ে গভীরভাবে উদ্বিগ্ন যুক্তরাষ্ট্র।   উল্লেখ্য, ২০১৫ সালে রাসায়নিক অস্ত্র তৈরি, মজুদ ওআরো পড়ুন


ওসি মোয়াজ্জেমের মামলার রায় বৃহস্পতিবার

  ফেনীর মাদ্রাসা ছাত্রী নুসরাত জাহান রাফির বক্তব্য স্যোশাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে দেয়ার অভিযোগে সোনাগাজী মডেল থানার সাবেক ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোয়াজ্জেম হোসেনের বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলার রায় আগামীকাল বৃহস্পতিবার ঘোষণা করা হবে।   বাংলাদেশ সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক মোহাম্মদ আস-শামস জগলুল হোসেন এ রায় ঘোষণা করবেন।   গত ২০ নভেম্বর রাষ্ট্র ও আসামিপক্ষের যুক্তি উপস্থাপন শেষে রায় ঘোষণার জন্য ২৮ নভেম্বর দিন ধার্য করেন বাংলাদেশ সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক মোহাম্মদ আস-শামস জগলুল হোসেন। এ মামলায় ১২জন সাক্ষী আদালতে সাক্ষ্য দেন।   এবছরের ১৭ জুলাই বিচারক মোহাম্মদ আস-শামস জগলুল হোসেন ওসি মোয়াজ্জেম হোসেনেরআরো পড়ুন


শিশুকে খুব বেশি বকাঝকা করা ঠিক নয় যে কারণে

ছোট বাচ্চা আছে যাদের তাদের মেজাজ ঠিক রাখাটা বেশ কঠিন হয়ে পড়ে প্রায়ই। তাই দেখা যায় যে, তাদের শান্ত করার জন্য বকা দেয়া হয়। সন্তান যখন কোন ভুল করে তখন অনেক পিতামাতাই বেশ কঠিন শব্দ ব্যবহার করে তাকে শাসন করার জন্য দ্বিতীয়বার চিন্তা না করেই। কারণ তারা মনে করেন যে সন্তানকে বাথরুমে বা অন্ধকার কক্ষে আটকে রাখার চেয়ে তাকে মৌখিকভাবে শাসন করা ভালো। কিন্তু ভুলটা এখানেই! শিশুকে শারীরিকভাবে আঘাত না করেও মৌখিকভাবে বকা দিলেও তার আত্মবিশ্বাস কমে যায়। তাছাড়া শিশুকে কঠিন শব্দ ব্যবহার করে বকা দিলে তাদের যে ক্ষতি হয়আরো পড়ুন


পরমাণু অস্ত্রমুক্ত বিশ্বের ডাক পোপের

পারমাণবিক অস্ত্রমুক্ত বিশ্বের ডাক দিলেন পোপ ফ্রান্সিস। রোববার চারদিনের সফরের প্রথম দিনেই জাপানের নাগাসাকি শহর পরিদর্শনকালে এ কথা বলেন পোপ।   মার্কিন পারমাণবিক বোমার আঘাতে ক্ষত-বিক্ষত দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের স্মৃতিবিজড়িত এ শহরের দুর্দশাকে ‘নরক দৃশ্যের’ সঙ্গে তুলনা করেন পোপ। এএফপি।   সেইসঙ্গে বিশ্বের ক্ষমতাসীন রাষ্ট্রগুলোর অস্ত্র উন্নয়ন প্রতিযোগিতাকে ‘নিরাপত্তার মিথ্যা অজুহাত’ আখ্যা দেন তিনি।   শনিবার টোকিও বিমানবন্দরে নেমেই তিনি জানান, হিরোশিমা-নাগাসাকি থেকেই চারদিনের জাপান সফর শুরু করতে চান।   নাগাসাকির মাটিতে দাঁড়িয়ে বিশ্বনেতাদের উদ্দেশে পোপ বলেন, ‘আমি নিশ্চিতভাবেই বলতে চাই, পরমাণু অস্ত্রমুক্ত একটি পৃথিবী গড়ে তোলা কেবল সম্ভবই নয়, এটিআরো পড়ুন


বাংলাদেশে খাগড়াছড়ি সীমান্তে কুকুর অবৈধভাবে পাচার হচ্ছে ভারতে

খাগড়াছড়ির সীমান্তবর্তী উপজেলা দীঘিনালার বিভিন্ন হাট থেকে কুকুর ধরে ভারতে নিয়ে বিক্রি করার  অভিযোগ উঠেছে দেশটির মিজোরামের বাসিন্দারা বিরুদ্ধে। জানা গেছে, খাওয়ার জন্য ধরে নিয়ে যাওয়া এসব একেকটি কুকুর মিজোরামের স্থানীয় বাজারে ৬ থেকে ৭ হাজার টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে।   খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, প্রায় প্রতি মাসেই দীঘিনালার বিভিন্ন হাট থেকে এমনভাবে কুকুর ধরা হচ্ছে। প্রথমে ফাঁদ পেতে কুকুরকে আটকানোর পর সরু তার দিয়ে কুকুরের মুখ বেঁধে ফেলা হয়।   এ ছাড়া প্রতিটি কুকুরের গলায় আটকে দেয়া হয় শুকনো বাঁশ। পরবর্তীতে দীঘিনালা থেকে গাড়ি ভাড়া করে এ সব কুকুরআরো পড়ুন


নাগরিকদের সেবায় ১ম অবস্থানে ফ্রান্স, ১৩৭তম বাংলাদেশ।

নাগরিকদের প্রত্যাশিত কল্যাণ, শিক্ষা, স্বাস্থ্যসেবা, জীবন সম্ভাবনা এবং বিশ্ব ভ্রমণের সুযোগের বিবেচনায় টানা অষ্টমবারের মতো শীর্ষ দেশ হয়েছে ফ্রান্স। এই বছর ফ্রান্স সম্ভাব্য ১০০ শতাংশের মধ্যে ৮৩.৫ শতাংশ পয়েন্ট অর্জন করে টানা অষ্টমবার শীর্ষ স্থানে রয়েছে ইউরোপের ওই দেশটি।   আর এই তালিকায় বাংলাদেশের অবস্থান ১৩৭তম, যা আগের বছর ছিল ১৩৯তম। ক্যালিন এবং কোচেনভ এর বিশ্বব্যাপী জাতীয়তার মানের সূচক (কোয়ালিটি অব ন্যাশনালিটি ইনডেক্স- কিউএনআই) এর সর্বশেষ অনুসন্ধানে এ তথ্য জানানো হয়েছে। সূচকে ফ্রান্সের পরেই ৮২.৮ শতাংশ নিয়ে যৌথভাবে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে জার্মানি ও নেদারল্যান্ডস। শীর্ষ  দশ দেশের তালিকায় ৮১.৭ শতাংশআরো পড়ুন


মিরসরাইতে আওয়ামীলীগের সম্মেলনে সাবেক কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ নেতার জরাজীর্ণ পোশাকে আসা ছবি ভাইরাল।

দল ক্ষমতায় অনেক বছর, দেশে অনেক আওয়ামীলীগ ও ছাত্রলীগ নেতা শুন্য থেকে হয়েছেন কোটিপতি।  অনেকের ভ্যাগের কয়েকগুণ উন্নতি হয়েছে।  দেশের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও বলেন আমার দলের ত্যাগী নেতা কর্মীরা ভাল নাই।  তেমনি একজন সাবেক ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয়   নেতা  মোতাহার হোসেন রানা।  গত ১৮ই নভেম্বর ছিল মিরসরাইতে আওয়ামীলীগের সম্মেলন, এই সম্মেলনে দলকে ভালবেসে এসে ছিলেন মোতাহার হোসেন রানা,  তবে কোন সম্মানীত অতিথি হিসেবে নয়। তিনি এসে ছিলেন প্রায় নোংরা, বোতাম ছেঁড়া শাট গায়ে দিয়ে রাস্তার ছিন্নমূল হোমলেস মানুষের মতো দর্শক সারির পেছনে বসে ছিলেন।  এমন একটি ছবি অনলাইনে ভাইরাল হয়েছে। এইআরো পড়ুন