প্রাণের ৭১

shimul

 

ইরানে আটক অস্ট্রেলীয় যুগলের মুক্তি

ইরানে আটক অস্ট্রেলীয় ট্রাভেল-ব্লগিং যুগলকে মুক্তি দেয়া হয়েছে। তেহরানের সাথে ‘অত্যান্ত সংবেদনশীল’ আলোচনার পর তাদেরকে ছাড়া হয়। গত মাসে তাদেরকে আটক করার কথা প্রকাশ পায়। শনিবার অস্ট্রেলিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী ম্যারিজ পেনি একথা জানান। খবর এএফপি’র। পেনি জানান, পার্থ ভিত্তিক জোলি কিং ও মার্ক ফির্কিন অস্ট্রেলিয়ায় ফিরে এসেছেন। সম্প্রতি ইরান কর্তৃপক্ষের হাতে গ্রেফতার হওয়া তৃতীয় অস্ট্রেলীয় নাগরিক এখনো আটক রয়েছে।


মহাজাগতিক আবিষ্কার: পদার্থে নোবেল পেলেন ৩ জন

ইরানে আটক অস্ট্রেলীয় ট্রাভেল-ব্লগিং যুগলকে মুক্তি দেয়া হয়েছে। তেহরানের সাথে ‘অত্যান্ত সংবেদনশীল’ আলোচনার পর তাদেরকে ছাড়া হয়। গত মাসে তাদেরকে আটক করার কথা প্রকাশ পায়। শনিবার অস্ট্রেলিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী ম্যারিজ পেনি একথা জানান। খবর এএফপি’র। পেনি জানান, পার্থ ভিত্তিক জোলি কিং ও মার্ক ফির্কিন অস্ট্রেলিয়ায় ফিরে এসেছেন। সম্প্রতি ইরান কর্তৃপক্ষের হাতে গ্রেফতার হওয়া তৃতীয় অস্ট্রেলীয় নাগরিক এখনো আটক রয়েছে।


বুয়েট শিক্ষার্থী আবরারের দাফন সম্পন্ন

জেলার কুমারখালীর কয়া ইউনিয়নের রায়ডাঙ্গা গোরস্থানে নিহত বুয়েট ছাত্র আবরার ফাহাদের দাফন সম্পন্ন হয়েছে। এর আগে ময়না তদন্ত শেষে সোমবার রাত ১০টায় বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বুয়েট) প্রথম জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। আজ ভোরে পিটিআই রোডস্থ আল-হেরা জামে মসজিদের সামনের রাস্তায় দ্বিতীয় নামাজে জানাজা, এরপর গ্রামের বাড়িতে নিজ বাসার সামনে তৃতীয় নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। রোববার রাতে বুয়েটের আবাসিক হলে বেদম প্রহারে আবরার ফাহাদের মৃত্যু হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের শেরেবাংলা হলের নিচতলা ও দোতলার সিঁড়ির করিডোর থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। নিহত আবরার বুয়েটের ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী ছিলেন।আরো পড়ুন


মহাজাগতিক আবিষ্কার: পদার্থে নোবেল পেলেন ৩ জন

মহাবিশ্ব কীভাবে বিকশিত হয়েছে ও পৃথিবীর অবস্থান কী এ নিয়ে গবেষণা কাজের জন্য এ বছর পদার্থ বিজ্ঞানে নোবেল পুরস্কার বিজয়ী হিসেবে তিন বিজ্ঞানীর নাম ঘোষণা করা হয়েছে। মঙ্গলবার সুইডেনের স্টকহোমে দ্য রয়্যাল সুইডিশ একাডেমি সেক্রেটারি জেনারেল প্রফেসর গোরান হ্যানসন বিজয়ীদের নাম বেছে নেন। তিনি বলেন, ‘বাস্তবিক মহাজগতের তাত্ত্বিক আবিষ্কারের জন্য জেমস পেবলস এবং সৌর-ধরনের নক্ষত্রের প্রদক্ষিণকারী এক্সোপ্ল্যানেট আবিষ্কারের জন্য মিচেল মেয়র ও ডিডিয়ের কুইলজেকে যৌথভাবে এ পুরস্কার দেয়া হচ্ছে। সৌরজগতের বাইরের একটি গ্রহ হলো এক্সোপ্ল্যানেট। মহাজাগতিক বিবর্তন সম্পর্কে আমাদের বোঝার জন্য এবং বিশ্বজগতের পৃথিবীর স্থান সম্পর্কে অবদানের জন্য তাদের কৃতিত্বআরো পড়ুন


সংগৃহিত রেণু থেকে ১ লাখ পোনা পরিচর্যা করে হালদায় ছাড়া হচ্ছে

দেশের একমাত্র প্রাকৃতিক মৎস্য প্রজনন ক্ষেত্র হালদা নদীতে মাছের পরিমাণ সমৃদ্ধ করতে হালদা নদী থেকে সংগৃহিত রেণু থেকে এক লাখ মাছের পোনা হালদাতে ছাড়ার উদ্যোগ গ্রহণ করেছে চট্টগ্রামের হাটহাজারী উপজেলা প্রশাসন। এবারই প্রথম হালদা নদী থেকে সংগ্রহ করা মাছের রেণু প্রক্রিয়া করে তৈরি পোনা মাছ ফের হালদায় ছাড়া হচ্ছে। তারই ধারাবাহিকতায় প্রথম পর্যায়ে আজ মঙ্গলবার (৮ অক্টোবর) হালদা নদীর সাত্তারঘাট অংশে ১০ হাজার এবং গড়দুয়ারা নয়াহাট এলাকায় ১০ হাজার মাছের পোনা ছাড়া হয়েছে। বাকি ৮০ হাজার পোনা বিভিন্ন ধাপে-ধাপে হালদায় ছাড়া হবে বলে জানিয়েছেন হাটহাজারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো.আরো পড়ুন


আবরার হত্যা মামলায় ১০জন ৫ দিনের রিমান্ডে

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ হত্যার ঘটনায় গ্রেফতারকৃত ১০ জনকে ৫ দিনের রিমান্ডে নেয়া হয়েছে। পুলিশ আজ মঙ্গলবার তাদেরকে ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে হাজির করে ১০ দিনের রিমান্ডের আবেদন জানালে শুনানি শেষে ঢাকা মহানগর হাকিম সাদবীর ইয়াসির আহসান চৌধুরী এই রিমান্ড মঞ্জুর করেন। রিমান্ডকৃত আসামিরা হলেন, মেহেদি হাসান রাসেল, মুস্তাকিম ফুয়াদ, আশিকুল ইসলাম বিটু, মুজতবা রাফিদ, ইফতি মোশাররফ সকাল, অমিত সাহা, সেফায়েতুল ইসলাম জিওন, অনিক সরকার, ইশতিয়াক মুন্না এবং খন্দকার তাবাখখারুল ইসলাম তানভির। রোববার মধ্যরাতে ফাহাদকে বিশ্ববিদ্যালয়ের শেরেবাংলা হলের দ্বিতীয় তলা থেকে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করেআরো পড়ুন


শোকার্ত মানুষের শ্রদ্ধা আর ভালোবাসায় সিক্ত হলেন জাতির পিতা

হাজার হাজার শোকার্ত মানুষের বিনম্র শ্রদ্ধা ও হৃদয় নিংড়ানো ভালোবাসার পাশাপাশি ফুলেল শুভেচ্ছায় সিক্ত হলেন বাংলাদেশের স্থপতি, হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদাত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আজ বৃহষ্পতিবার রাজধানীর ধানমন্ডিস্থ বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘরের সামনে রক্ষিত তাঁর প্রতিকৃতিতে বিভন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ পুষ্পস্তবক অর্পণের মধ্য দিয়ে জাতির পিতাকে শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করেন। রাজধানী ছাড়াও সারাদেশে এবং দেশের বাইরে বাংলাদেশের কুটনৈতিক মিশনগুলো বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুলেল শ্রদ্ধা নিবেদনসহ নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে শোক দিবস পালন করে। শোক দিবস উপলক্ষে দিনব্যাপী কোরআনআরো পড়ুন


কবি সুকান্তের ৯৩তম জন্মবার্ষিকী

আজ ১৫ আগস্ট কবি সুকান্ত ভট্টাচার্যের ৯৩তম জন্মবার্ষিকী। বাংলা কাব্য, নাটক ও প্রবন্ধ সাহিত্যে অসাধারণ প্রতিভাধর এই কবি স্বল্প সময়ে লেখালেখি করেও বিপুল মেধার স্বাক্ষর রাখেন এবং খ্যাতিলাভ করেন। কবি সুকান্ত ভট্টাচার্য তার কবিতায় বলেছেন ‘সাবাশ বাংলাদেশ/ এ পৃথিবী অবাক তাকিয়ে রয়/জ্বলে পুড়ে মরে ছাড়খার / তবু মাথা নোয়াবার নয়’। আরেক কবিতায় বলেন ‘ক্ষুধার রাজ্যে পৃথিবী গদ্যময় / পূর্ণিমার চাঁদ যেন ঝলসানো রুটি’। কাব্য সাহিত্যে এমনই ক্ষুরধার কবিতা আর প্রগতিধারার নাটক রচনা করে কবি সুকান্ত অমর হয়ে আছেন। ১৯২৬ সালের ১৫ আগস্ট কবি সুকান্ত ভট্টাচার্য তৎকালীন গোপালগঞ্জ মহকুমার (বর্তমানে জেলা)আরো পড়ুন


আজ জাতীয় শোকদিবস

আজ ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস। স্বাধীনতার স্থপতি, মুক্তিযুদ্ধের সর্বাধিনায়ক, সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালী, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদত বার্ষিকী। জাতি-ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে বাঙালি জাতি গভীর শ্রদ্ধার সাথে পালন করবে দিনটি। ১৯৭৫ সালের শোকাবহ এই কালোদিবসে ভোর রাতে সেনাবাহিনীর কিছুসংখ্যক বিপথগামী সদস্য ধানমন্ডির বাসভবনে বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যা করে। ঘাতকরা শুধু বঙ্গবন্ধুকেই হত্যা করেনি, তাদের হাতে একে একে প্রাণ হারিয়েছেন বঙ্গবন্ধুর সহধর্মিনী বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব, বঙ্গবন্ধুর সন্তান শেখ কামাল, শেখ জামাল ও শিশু শেখ রাসেলসহ পুত্রবধু সুলতানা কামাল ও রোজি জামাল। পৃথিবীর এই জঘন্যতম হত্যাকান্ড থেকে বাঁচতে পারেননি বঙ্গবন্ধুরআরো পড়ুন


মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস সংরক্ষিত থাকবে লাল-সবুজের অপ্রতিরোধ্য চিহ্নকে বুকে জড়িয়ে প্রতিটি বাঙালির জীবনবোধে।

৩০ লক্ষ প্রাণের বিনিময়ে প্রাপ্ত লাল-সবুজের অপ্রতিরোধ্য চিহ্নকে নিয়েই পরাজিত পাকী আত্মার যত রকমের আত্মগ্লানি মিশে আছে আর সেই অপ্রতিরোধ্য চিহ্নকে সরাতে পারলেই এদের যাপিত গ্লানিবোধটুকু ধুয়েমুছে সাফসুতরো হয়ে যায়। তাই, এসব পাকী আত্মায় বেঁচে থাকা কীটপতঙ্গরূপী মনুষ্য প্রজাতিগুলো নিজেদের জাত চেনাতে ঘাপটি মেরে বসে আছে শুধু পাপনের মতো কিছু অর্বাচীনের অপেক্ষায়। অথচ, তার বাবার ইতিহাস আর মায়ের আত্মা এ জাতির জন্য গর্বের বিষয়। ৭৫’র এর পরবর্তী পরিস্থিতিতে ৭১ সালের মহান মুক্তিযুদ্ধে সংগঠিত জেনোসাইড থেকে শুরু করে যুদ্ধ চলাকালীন সময়ের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা কিংবা স্মৃতিচিহ্ন সংবলিত জায়গা সমূহ আমাদের রাজনৈতিকআরো পড়ুন